১ টাকার আর্টিস্ট শুভ!

মাত্র ২৫৭ টাকা নিয়ে ট্রেনে করে ময়মনসিংহ থেকে ঢাকায় এসেছিলেন চিত্রনায়ক আরিফিন শুভ। আর এখন প্লেনে করে মুম্বাইয়ে যান কাজ করতে। প্রায় এক যুগ ধরে শোবিজ অ’ঙ্গনের আস্থার প্রতীক হয়ে উঠেছেন এই তারকা।

কাজ করছেন স্মর’ণকালের সবচেয়ে বড় বাজেটের ছবি ‘ব’ঙ্গবন্ধু’তে। কিন্তু এর জন্য কত পারিশ্রমিক নিয়েছেন জানেন? মাত্র ১ টাকা! শুভর মতে, তার অভিনয় জীবনের সেরা এক চরিত্র শেখ মুজিবুর রহমান। অনেক আবেগের নামও তার কাছে।

তাই এখানে টাকাটা মুখ্য নয়। মূলত এমন অনুভূতি থেকেই মাত্র এক টাকার বিনিময়ে বাংলাদেশ ও ভারতের যৌ’থ প্রযোজনার এই সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি।

আর সেই পারিশ্রমিক পাওয়া এক টাকার চেকের ছবিও তিনি প্রকাশ করেছেন সোশ্যাল হ্যান্ডেলে। যথারীতি চেকটি এখন ভাইরাল! শুভর ভাষ্য, ‘একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবে আমা’র মনে হয়েছে,

একটা চরিত্র ফুটিয়ে তুলতে হলে সেটার নার্ভ ধরতে হয়, হোক সেটা ফিকশনাল বা কাল্পনিক। শুনেছি, ব’ঙ্গবন্ধু তার জীবনের ১১ বছর ৪ মাস ২২ দিন কারা’গারে কাটিয়েছেন। এই মানুষটার চরিত্রের অন্যতম বৈশিষ্ট্য স্যাক্রিফাইস।

জীবদ্দশায় তিনি মানুষ ও দেশের জন্য কেবল ত্যাগই করে গেছেন। ব’ঙ্গবন্ধুর সাহস আর স্যাক্রিফাইসের কাছে আমা’র এই স্যাক্রিফাইস কিছুই না। সেই ভাবনা থেকেই পরিচালককে বলেছিলাম, প্রাপ্য যাই হোক, আমি নেবো না।

এও বলেছিলাম, যেহেতু আমা’র র’ক্ত, ঘাম সবই এই সিনেমায় থাকবে, তাই ফ্রিতে কাজ করবো না, পারিশ্রমিক নেবো। তাই আমি এক টাকা নিয়েছি।’ চুক্তির সময় শুভর কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল তার কোনও শর্ত আছে কিনা।

তখন এই তারকা সম্মানী এক টাকা চেয়েছেন। যা শুনে মুগ্ধ হয়েছিলেন ছবির পরিচালক শ্যাম বেনেগালসহ অনেকে। এমনি শুটিং ইউনিটে আদর করে শুভকে ডা’কা ’হতো ‘এক টাকার আর্টিস্ট’ বলে! উপাধিটা দেন শ্যাম বেনেগাল নিজেই।

২০১৯ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি ব’ঙ্গবন্ধুতে অভিনয়ের আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব পান শুভ। তার আগে ৫ দফা তাকে অডিশন দিতে হয়েছে। আর ছবির কারণেই অসুস্থ অবস্থায় মুম্বাই গিয়েছিলেন শুভ।

এদিকে, ভারতের মুম্বাইয়ে ‘ব’ঙ্গবন্ধু’র বেশিরভাগ অংশের কাজ শেষ হয়েছে। শিগগিরই বাংলাদেশ অংশের শুটিং শুরু করবেন নির্মাতা শ্যাম বেনেগাল। এটি শুরু হবে আগামী সেপ্টেম্বরে।

চলচ্চিত্রটিতে ব’ঙ্গবন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করছেন আরিফিন শুভ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোটবেলার চরিত্রে আছেন নুসরাত ফারিয়া। এছাড়া তাজউদ্দীন আহমদ চরিত্রে রিয়াজ আহমেদ এবং ব’ঙ্গবন্ধুর স্ত্রী ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ভূমিকায় অভিনয় করছেন নুসরাত ইমর’োজ তিশা।

অন্যান্য গু’রুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা যাবে, খায়রুল আলম সবুজ (লুৎফর রহমান), দিলারা জামান (সাহেরা খাতুন), সায়েম সামা’দ (সৈয়দ নজরুল ইসলাম), শহীদুল আলম সাচ্চু (এ কে ফজলুল হক), প্রার্থনা দীঘি (ছোট রেনু),

রাইসুল ইসলাম আসাদ (আবদুল হা’মিদ খান ভাসানী), গাজী রাকায়েত (আবদুল হা’মিদ), তৌকীর আহমেদ (সোহরাওয়ার্দী), সিয়াম আহমেদ (শওকত মিয়া) ও মিশা সওদাগর (জেনারেল আইয়ুব খান)।

ছবিটি ২০২১ সালেই মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা দুই রাষ্ট্রের। বাংলাদেশের স্থপতি ব’ঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী নিয়ে নির্মিত এ চলচ্চিত্রটি ’হতে যাচ্ছে এ পর্যন্ত সবচেয়ে বড় ক্যানভাসের কাজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *