সেদ্ধ ডিম দিয়ে নতুন স্টাইলে এই দারুন পদ্ধতিতে এই রেসিপি ভাত বা রুটি দিয়ে জাস্ট জমে যাবে, রইলো পদ্ধতি!

মন চাইছে যে মুখরোচক কিছু খাবার খেতে? প্রতিদিনকার যে সমস্ত রান্না গু’-লি করেন সেগু’লো খেতে খেতে বির’ক্ত হয়ে পড়েছেন? মনে হচ্ছে যে এবার বাইরে গিয়ে কিছু ভালোমন্দ খেয়ে আসি ?

তাহলে আপনার মন খারাপের সমাধান রয়েছে এই প্রতিবেদনে । কিন্তু একটাই অনুরোধ এই মুহূর্তে অকারণে বাইরে বেরোবেন না। কিন্তু এখন যে বাইরের পরিস্থিতি সেই অবস্থাতে বাইরে গিয়ে খাবার কিনে আনা মোটেও সুবিধাজনক হবে না আপনার স্বাস্থ্যের পক্ষে ।

সবথেকে ভালো হবে যদি বাড়িতেই মুখরোচক খাবার আপনি বানিয়ে নিতে পারেন । কি বানাবেন ভেবে উঠতে পারছে না। তাহলে আজকের প্রতিবেদন আপনার জন্য কারণ আজকের প্রতিবেদন আপনাদেরকে বলতে এসেছি

কিভাবে খুব কম সময় মধ্যে আমি তৈরি করে নিতে পারবেন ডিম কষা। এই মুহূর্তে আমি ডিমের তরকারি কথা বলতে চলেছি। আমা’দের মধ্যে অনেকেই হয়তো ডিমের তরকারি রান্না করতে পারেন খুব সুন্দর ভাবে ।

তবে এই রেসিপিটি একবার চেষ্টা করে দেখু’ন বাড়িতে। কারণ এর আগে আপনি এই রেসিপিতে ডিম রান্না করেননি । প্রথমে তিন থেকে চারটি ডিম ভালো মতন করে সেদ্ধ করে নেব এবং সেদ্ধ করে নেবার পর সেটি গু’লির খোসা ছাড়িয়ে অন্য একটি পাত্রে রাখবো ।

অ’পরপক্ষে একটি কড়াইয়ে তিন থেকে চার চামচ সরষের তেল নিয়ে নেব এবং তার মধ্যে দেব এক চামচ পরিমাণ হলুদ , লংকা এবং দুটো কু-চনো পিয়াজ । তার মধ্যে যোগ করবো এক চামচ লব’ঙ্গ একটি তেজপাতা এবং কিছুটা পরিমাণ এলাচ এরপর পেঁয়াজগু’লো কে ভালো মতন ভাবে ভেজে নেব ।

ভালোমতন ভাবে ভাজার পর তার মধ্যে যোগ করে দেবো কিছু পরিমাণ আদা এবং রসুন বাটা এবং তার মধ্যে কিছুটা পরিমাণ হলুদ ও নুন । তারপর দুই থেকে তিন মিনিট ঢাকা দিয়ে ভালো মতন সেদ্ধ করবো ।

তারপর সেখানে যোগ করে দেবো আগে থেকে সেদ্ধ করে রাখা ডিমগু’-লি এবং সেই ডিমগু’-লি দেওয়ার পর আরও একবার তিন থেকে চার মিনিট ভালো মতন ভাবে ঢাকা দিয়ে হাই ফিল্মে ফুটতে দেব এবং যোগ করে পরিমাণমতো নুন । তাহলে তৈরি হয়ে যাবে ডিমের তরকারি বা ডিম কারি । এটি আপনার খাবারের সাথে পরিবেশন করতে পারেন। মিলবে অনেকখানি প্রশংসা। ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *