সূর্যের তাপে গলে যাচ্ছে প্যারিসের এই বাড়িটি

সূর্যের তাপে বাড়িটি গলে গফলে পড়ছে। বাড়ির দেয়ালের রং থেকে শুরু করে জানালা দরজা সবই। নাহ এটি কোনো বাস্তব ঘটনা নয়, তবে সিনেমা’র অ্যানিমেশন কিছুও না। বছর তিনেক আগের কথা। প্যারিসের জর্জ-৫ অ্যাভেনিউর ধারে পথচলতি মানুষ হঠাৎ থমকে দাঁড়িয়ে পড়লেন। দেখতে দেখতে ভিড় জমে গেল। সকলেই অবাক চোখে তাকিয়ে দেখছেন রাস্তার ধারে একটি বাড়ির দিকে। সবদিক থেকেই বাড়ির মতো। দেয়াল, জানলা, দরজা সবই আছে। তবে সবই যেন অদ্ভুত চেহারার। দেখে মনে হয় সূর্যের তাপে বুঝি

চলছে লকডাউন! তাই মাঝ আকাশে বিয়ে করলেন দম্পতি, তু-মু’ল ভাইরাল ভিডিও !

বিয়ে মানেই অত্যন্ত আনন্দের একটি উৎসব।যেখানে বর এবং কনের দুই পরিবার আনন্দ সহকারে অংশগ্রহণ করে থাকে। কিন্তু ভাইরাসের আগমনের ফলে এসব আনন্দ প্রায় মাটি ’হতে যেতে বসেছে। তাই এক নতুন ধরনের পন্থা গ্রহণ করলেন এক দম্পতি। হয়তো অনেকের মনেই প্রশ্ন আসছে এমনকি পন্থা গ্রহণ করেছেন তারা? তাহলে বিস্তারিত জানতে আমা’দের এই প্রতিবেদনটি শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ুন। প্রস’ঙ্গত লকডাউন চলাকালীন সময়ে বিয়েতে অত্যন্ত অসুবিধার সম্মুখীন ’হতে হচ্ছে সবাইকে।অনেক জায়গাতেই বিয়ের তারিখ পিছিয়ে দেওয়া হচ্ছে বা

পাঁচ টাকার নোটের বদলে ৩০ হাজার, পুরোনো নোটে ফের লক্ষীলাভ, জমা করুন এই ওয়েবসাইটে!

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমর’া প্রায় সময় নানান ধরনের নতুন বিষয় সম্পর্কে জানতে পারি। আজকের এই প্রতিবেদনও থাকছে বিশেষ কিছু। প্রস’ঙ্গত সময়ের পরিবর্তন মানব জীবনের একটি অত্যন্ত সাধারণ ঘটনা। যারা সময়ের পরিবর্তন সম্পর্কে আগ্রহী হয়ে থাকেন তারা অনেক ক্ষেত্রেই বিভিন্ন পুরনো জিনিস সংগ্রহ করে রাখেন স্মৃ’তি হিসেবে। তাদের জন্য আজকের এই প্রতিবেদনটি বিশেষ কার্যকরী ’হতে চলেছে। প্রস’ঙ্গত পুরনো এবং ঐতিহাসিক জিনিস জমা করার শখ অনেকের মধ্যেই রয়েছে। আর এই আগ্রহ মানুষকে বর্তমানে লাখপতি বা কোটিপতি করে

কোয়ারেন্টাইনের ইতিহাস, সময়সীমা শুনলে চক্ষু চড়ক গাছ হবে

খ্রীষ্টের জন্মের বহু আগেই এই পদ্ধতি ব্যবহার করা ’হতো বলে জানা গিয়েছে। বিশ্বজুড়ে করোনা (corona) ভাইরাস (virus) ছড়িয়ে পড়েছে। এরপর থেকেই ‘কোয়ারেন্টাইন’, (quarantine) ‘আইসোলেশন’ (isolation) শব্দগু’লি মানুষের খুবই পরিচিত হয়ে উঠেছে। কিন্তু ইতিহাস বলছে ইংরেজি ডিকশনারিতে এগু’লো নতুন শব্দ নয় বা নতুন কোনও পদ্ধতি নয়। খ্রীষ্টের জন্মের (before christ) বহু আগেই এই পদ্ধতি ব্যবহার করা ’হতো বলে জানা গিয়েছে। পরে বিভিন্ন সময় কোনও রোগের প্রকো’প দেখা গেলে এই পদ্ধতি ব্যবহার করতে দেখা গিয়েছে। এর সবথেকে

তিমির বমিতে রাতারাতি কোটিপতি নারী

সমুদ্রের সামনেই বাড়ি। সময় কা’টাতে সৈকতে হাঁটতে বেরিয়েছিলেন ৪৯ বছর বয়সী থাইল্যান্ডের এক নারী । তখনই দেখেন পানির তোড়ে পাড়ে ভেসে এসেছে আজব এক জিনিস। যা থেকে আবার মাছের মতো আঁশটে গন্ধ বেরচ্ছে। এরপরই সেটি বাড়ি নিয়ে আসেন পরবর্তীতে প্রতিবেশী এবং অন্যান্যদের সেটি দেখানোর পরই জানতে পারেন, সেটি অন্য কিছু নয়, বহু মূল্যবান ‘তিমির বমি’, যার ভাল নাম অ্যামবারগ্রিস । জানা যায়, ওই নারী যে অ্যামবারগ্রিসটি পেয়েছেন তার বাজারমূল্য ২,৫০,০০০ মা’র্কিন ডলার। অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায়

বিয়ে ছা’ড়াই স’ন্তান জ’ন্ম’দানে শী’র্ষে যে চার দেশ!

বি’বাহবহির্ভুত স’ন্তান জ’ন্ম’দানে ইউরোপের দে’শগু’লোতে শী’র্ষে রয়েছে ফ্রান্স। দেশটিতে ১০০ শি’শুর মধ্যে ৬০ জনের বাবা-মা বিয়ে ছাড়াই তাদের স’ন্তান জ’ন্ম দেন। পরিবার গঠন, স’ন্তান জ’ন্ম’দান এবং লালন-পা’লনের জন্য বিয়ে একটি ঐতিহ্যবাহী প’দ্ধতি। কিন্তু পশ্চিমা আধুনিক স’ভ্যতায় সেই ঐতি’হ্য দিন দিন গু’’রুত্ব হা’রাচ্ছে। যার প্রমাণ মিলে পরিসংখ্যান সংস্থা ইউরোস্টেটের এক জরিপে।২০১৮ সালে ইউরোপে বি’বাহবহির্ভূ’ত স’ন্তান জ’ন্ম দেয়ার হার দাঁ’ড়ায় ৪২ শতাংশ। ২০০০ সালে এ হার ছিল ২৫ শতাংশ। গেলো ১৮ বছরে বিয়ে ছা’ড়া স’ন্তান জ’ন্ম দেয়ার

এক সঙ্গে ১০টি সন্তান জন্ম দিয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়লেন এই মহিলা

আমর’া অনেকের জমজ সন্তান ’হতে দেখেছি। এরকম ঘটনা প্রায়ই শোনা যায়। তাই এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। কিন্তু যদি শোনা যায় একজন মহিলা ১০টি বাচ্চা জন্ম দিয়েছেন! হ্যাঁ এমনটাই ঘটেছে দক্ষিণ আফ্রিকায়। এক মহিলা ১০টি বাচ্চার জন্ম দিয়ে বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন। তিনি যদিও জানতেন তার গ’র্ভে রয়েছে আট’টি সন্তান। স্ক্যানের রিপোর্টে এমনটাই দেখা গিয়েছে। কিন্তু প্রসবের সময় সেই অনুমান বদলে যায়। সোমবার রাতে ৩৭ বছরের গোসিয়ামে থামা’রা সিথোলে ১০ টি সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। গত মাসে

গ’র্ভব’তী হয়েও বি’ষাক্ত সা’পের মুখ থেকে মালিককে বাঁচা’তে পিছুপা হয়নি মা কু’কুর

আমর’া বাড়িতে অনেকেই কু’কুর পুষে থাকি। কুকুর যে প্রভুভক্ত। নিজের প্রাণ বলি দিয়ে ফের তার প্রমাণ দিল দুই বছরের পিটবুল নং হর্ম। বিশ্বের সবচেয়ে বি’ষাক্ত সা’পের মুখ থেকে তার মালিককে বাঁ’চা’তে নির্ভয়ে এগিয়ে যায় সে। জানা যায়, প্রায় চার বার বি’ষাক্ত কো’বরা ছো’বল মা’রে তার গায়ে। তবু প্রাণ থাকা পর্যন্ত সে ল’ড়াই করে যায় সা’পটির স’ঙ্গে। তারপরই আস্তে আস্তে নি’স্তেজ হয়ে যায় নং। এই ঘটনাটি ঘটেছে সেন্ট্রাল থাইল্যান্ডের পাথুম থানি অঞ্চলে।জানা গেছে, নং হর্ম গ’র্ভবতী

এক অন্ধ হরিণ ও ১০ বছরের বালকের হৃদয়বিদারক গল্প

যদি ভাবেন যে এটা ১০ বছর বয়সী এক ছে’লের গল্প, যে কি না একটা অন্ধ হরিণের দায়িত্ব নিয়েছিল, তাহলে আপনি ভুল করবেন। যদি মনে করেন এটি নিজের রক্ষাক’র্তার প্রতি একটা হরিণের পাল্টা ভালোবাসা প্রকাশের গল্প, তাহলেও ভুল হবে। এটা আসলে এমন একটি ছে’লের গল্প যে এক অন্ধ হরিণকে সাহায্য করার মতো সংবেদনশীল। সে প্রতিদিন সকালে স্কুলে যাওয়ার আগে ওই হরিণটাকে ঘাস খুঁজে পেতে সাহায্য করত। ইলিনয়ের শিকাগোতে ১০ বছর বয়সী ছে’লেটি একটা অন্ধ হরিণকে খুঁজে

দেখা মিলল মানুষের মতো এক বিরল প্রাণীর!

সামাজিক যোগাগোগ মাধ্যমে পাওয়া গেল অদ্ভূত দেখতে চারপেয়ে এক প্রাণীর কিছু ছবি। যার মুখটা মানুষের মতো, গায়ে আরমাডিলোর মতো বর্ম, আঙুলগু’লো ব্যাঙের মতো। সেইস’ঙ্গে কিছু মানুষের ছবি, যাঁরা কোনও কিছুর আঘাতে র’ক্তাক্ত। স’ঙ্গে লেখা বর্ণনায় দাবি করা হচ্ছে- বিরল ওই প্রাণীর হা’মলায় আ’হত হচ্ছেন অনেকেই। সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া এসব পোস্টের কোথাও বলা হচ্ছে- ভারতের পশ্চিমব’ঙ্গের পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়ে ওই প্রাণীটিকে দেখা গেছে। কেউ কেউ আবার লিখেছেন- রাজস্থান ও গু’জরাটের খেতে এই জীবটির দেখা মিলেছে। অস্ত্র