সমাজের হাজারো প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে মাত্ৰ ৩ ফুট উচ্চতা নিয়ে আজ IAS অফিসার।

সমাজ আজও মেয়েদের বোঝা ভাবে তারওপর আবার যদি মেয়ের শরীরে কোনো খামতি থাকে তাহলে ছোট থেকে তাকে কি ভয়ংকর পরিমান বঞ্চনার শিকার ‘’হতে হয় তা অনেকেরই অজানা। সমস্ত বঞ্চনা প্রতিকূলতা কাটিয়ে অনেকেই জীবনে প্রতিষ্ঠিত হয়ে সমাজের বুকে দৃষ্টান্ত তৈরি করেছে, আরতি ডোগরা তাদেরই একজন। আরতি, উত্তরা খণ্ডের দেরাদুনের বাসিন্দা। আরতির বাবার রাজেন্দ্র ডোগরা সেনার একজন অফিসার আর মা কুমকুম ডোগরা একজন স্কুল শিক্ষিকা।যে কারণে আরতি বঞ্চনার শি’কার তা হলো ওনার উচ্চতা মাত্র তিন ফুট ছয়

গার্লফ্রেন্ডের উৎসাহ তে ক্লাস 12th ফেল এই ট্রাক ড্রাইভার আজ IPS অফিসার।

এক সময় ধনী ব্যক্তিদের বাড়ির কুকুর দেখাশোনা, আবার কখনো ট্যাম্পো চালাতেন, প্রেমিকার উৎসাহে আজ আইপিএস অফিসার।প্রত্যেক ব্যক্তির জীবনে কিছু না কিছু অনুপ্রেরণা থেকে থাকে এবং সেই ব্যক্তি এই উৎসাহের ভিত্তিতে এগিয়ে যায়। এগু’লি ছাড়াও তাদের দ্বারা করে থাকা সংঘর্ষ একদিন সফল হয়, মধ্য প্রদেশের এক ব্যক্তির এমনই একটি গল্প আছে যেখানে তিনি সমস্ত নিন্ম মানের কাজ করেছেন যাতে সে তার পড়াশোনায় খরচ বহন করতে পারে। এই ব্যক্তি কখনও কখনও ধনীব্যক্তিদের বাড়িতে একটি কুকুর কে দেখাশোনা

বিয়ের আগের দিন মেয়েকে পা ধুইয়ে দুধ খেলেন বাবা!

দুধ দিয়ে মেয়ের পা ধুইয়ে, খেয়ে নিলেন মেয়ের পা ধোয়া সেই দুধটুকু। মেয়ের কোনও আপ’ত্তিই কানে তুললেন না তিনি। আলতা পায়ের ছাপ ও নিলেন যত্নে।বাড়ির চৌকাঠ ডিঙিয়ে মেয়েটা যখন পরের বাড়ি চলে যাবে, লোকে বলবে এতদিনে নিজের ঘরে যাচ্ছে মেয়ে, বলবে শ্বশুড়ের ভিটেই মেয়েদের নিজের জায়গা। ঠাকুরমশাই গোত্রান্তর করে দেবেন মন্ত্র পড়ে। কিন্তু বাবা-মায়ের বুকের ভিতর এক পৃথিবী শূন্যতায় যে হাহাকার ওঠে তা শুনতে পায় কজন? সেই ছোট্ট দুটো হাত-পা, সেই চুলের বেণী, সেই চুড়িদারের

২৭ তলা বাড়িতে মাত্র ৫ সদস্যের এক পরিবার, সাথে ৬০০ কাজের লোক!

নিজে’র স্ত্রী এবং তিন সন্তানের বসবাসের জন্য বানিয়েছেন ‘আন্তিলিয়া’ নামের একটি বাড়ি। তবে বাড়িটি নি’র্মাণে খরচ হয়েছে ১০০ কোটি পাউন্ড! ২৭ তলাবিশিষ্ট এই বাড়িতে আছে তিনটি হেলিপ্যাড। আছে ৫০ আসনের একটি থিয়েটার। এমনকি কাজে’র জন্য আছে ৬ শতাধিক লোক। বলছিলাম এশিয়ার সবচেয়ে ধনী ব্য’ক্তি ভারতের মুকেশ আম্বানির কথা। মাত্র একটি পরিবার বসবাসের জন্য সম্ভবত বিশ্বে কোথাও এত বড় বাড়ি, এমনকি তাদেরকে দেখাশোনার জন্য এত কাজে’র লোক আর কোথাও নেই। আম্বানির এই বাড়িতে বিলাসিতার জন্য আছে

পু’কু’রেই মিলল কোটি টা’কার হলুদ কচ্ছপ!

ভা’রতের পশ্চিমব’ঙ্গের একটি পুকুরে পাওয়া গেছে হলুদ রঙের কচ্ছপ। ম’’ঙ্গলবার দেশটির বন বিভাগের কর্মকর্তারা কচ্ছপটিকে উদ্ধার করেন। এ নিয়ে দ্বিতীয়বা’রের মতো ভারতে পাওয়া গেল হলুদ রঙের বি’রল কচ্ছপ। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, এর আগে গত জু’লাইয়ে ওডিশায় একই রঙের একটি কচ্ছপ পাওয়া গিয়েছিল। ভারতীয় বন বিভাগের কর্মকর্তা দেবাশীষ শর্মা গত ম’ঙ্গলবার টুইটারে সদ্য উ’দ্ধার করা কচ্ছপটির ছবি প্রকাশ করেছে। দেবাশীষ বলেন, পশ্চিমব’ঙ্গের বর্ধ’মানের একটি পুকুরে কচ্ছপটির খোঁজ পাওয়া যায় এবং পরে সেটিকে উদ্ধার

অষ্টম শ্রেণির সার্টিফিকেট দিয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরে যেভাবে পাবেন চাকরির সুযোগ

জনবল নিয়োগের বিজ্ঞ’’প্ত ি প্রকাশ করেছে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদ’’প্ত র। দুটি পদে মোট ৭৯ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। পদের নামঃ ড্রাইভার (অবিবাহিত), মাস্টার ড্রাইভার (মেরিন)। পদসংখ্যাঃ মোট ৭৯ জন। যোগ্যতাঃ স্বীকৃত যেকোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে ন্যূনতম অষ্টম শ্রেণি পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীর ভারী যানবাহন চালনায় বৈধ ড্রাইভিং লাইসেন্সধারী ‘’হতে হবে। ন্যূনতম উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি, বুক ৩২ ইঞ্চি, ওজন ১১০ পাউন্ড ‘’হতে হবে। ন্যূনতম

মায়ের সাথে বস্তিতে থাকা ছেলেটি আজ যেভাবে হলেন আমেরিকার রোবট গবেষক

এক সময় মুম্বাইয়ের কুরলা বস্তিতে থাকতেন জয়কুমা’র বৈদ্য। বস্তিতে একটা ছোট ঘরে মায়ের স’’ঙ্গে থাকতেন তিনি। দিনের শেষে পাউরুটি, শিঙাড়া বা চা জুটত তাঁদের কপালে। সেই জয়কুমা’রই এখন যু’ক্তরাষ্ট্রে গবেষণা করছেন। শ্বশুর বাড়ির লোকেরা নলিনীকে বের করে দিয়েছিলেন। ছে’লেকে স’’ঙ্গে নিয়ে তিনি ঠাঁই নেন ওই বস্তিতে। ২০০৩ সাল থেকে তাঁদের অবস্থা আরও খা’রাপ হয়ে যায়। নলিনীর মা একটা চাকরি করতেন। মে’য়েকে তিনি অর্থ সাহায্যও করতেন। কিন্তু ২০০৩ সালে অ’সুস্থতার জন্য তাঁকে চাকরি ছাড়তে হয়।দরিদ্রতার প্রভাব

তীব্র ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল ভারত, বাড়ি-ঘর ও রাস্তায় ফাটল

ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল ভারতের উত্তরব’ঙ্গের একাধিক জেলা। আজ বুধবার (২৮ এপ্রিল) সকালে কম্পন অনুভূত হয়েছে দক্ষিণব’ঙ্গেও। রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ৬.৪। অসমের গু’য়াহাটির কাছে শোনিতপুরে ভূপৃষ্ঠের থেকে ২১.৪ কিলোমিটার নীচে ভূমিকম্পের উৎসস্থল বলে জানা গিয়েছে। ভূমিকম্পের জেরে অসমে বেশ কয়েকটি বাড়িতে ফাটল দেখা দিয়েছে। দ্বিতীয় কম্পনের মাত্রা আরও তীব্র ছিল বলে মনে করা হচ্ছে। গু’য়াহাটি থেকে ১১ কিলোমিটার উত্তর ও উত্তর-পূর্বে এই কম্পনের তীব্রতা বেশি ছিল বলে জানা যায়। আজ সকাল ৭টা ৫১ মিনিটে শোনিতপুরে

“আমি ক্রিকেটে লোকসভা ও রাজ্যসভায় বেস্ট প্লেয়ার হয়েছিলাম”- দাবী মমতার!

বর্তমানে রাজ্য রাজনীতি ভী-ষণভাবে উ-ত্ত’প্ত । এর চিত্র আমর’া ইতিমধ্যে বিভিন্ন জায়গায় দেখতে পেয়েছি । দেখতে পেয়েছি শীতলখুচি দেখতে পেয়েছি কাঁথি নন্দীগ্রামে । এবারে বিধানসভা ভোট অন্যান্য ভোটের তুলনায় যথেষ্ট পরিমাণে আলাদা সে ব্যাপারে কোনো দ্বিমত নেই ।কারণ এবারে বিধানসভা ভোটে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই ’হতে চলেছে তিনটি রাজনৈতিক দলের মধ্যে ।একদিকে সংযুক্ত মুহূর্তের আরো একবার মা-থা-চা-ড়া দিয়ে উঠতে চলেছে এবং অনেকের মনে হচ্ছে যে এবারে কোথাও যেন সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থীরা মিরাক্কেল ঘ-টাতে পারে । অ’পরদিকে বিজেপি

পাঁচমাসের গ’র্ভ’বতী ক’রো’না যোদ্ধা ডি.এস.পি শিল্পা সাহুকে স্যালুট ভারতবাসীর!

ক-রোনা অ-রি-মা-রির দ্বিতীয় ঢেউ ইতিমধ্যে আ-ছড়ে প-ড়েছে গোটা ভারতবর্ষে জুড়ে । প্রায় প্রতিদিনই কয়েক লাখ মানুষ আ-ক্রা’ন্ত হচ্ছে । মা-রা যা-চ্ছে প্রায় কয়েক হাজার মানুষ । হা-স-পা-তালে বে-ডের অ-ভাবে রাস্তায় চি-কি-ৎসা-হীন ভাবে মা-রা যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে বেশ কয়েকটি জায়গায় । দুই ফুট দূরে দূরে জ্ব-লছে চি-তা । এখন মানুষ কি করবে কিভাবে রেহাই পাবে তা ভেবে কূলকিনারা পাচ্ছেন না অনেকে । আমর’া বাড়িতে বসে থেকে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট বা খবরা-খবর পেলেও যারা প্রথম সারির